1. admin@news7bangla.net : admin :
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০১:০৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম প্রকাশিত: ১০:২৬, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ আপডেট: ১০:২৮, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে মোট ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকায় মারা গেছেন ৮ জন, আর ঢাকার বাইরে ৬ জন। এ ১৪ জনের মধ্যে ৯ জনই নারী, পুরুষ ৫ জন। একই সময়ে সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৫ জন। Google news বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারিতে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হলেও ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি। ঢাকায় জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৮ জন, আর ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ, ৬৯৭ জন। জানুয়ারি মাসে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৯২৮ জন ডেঙ্গু রোগী। মোট মৃত্যুর হার ১.৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে নারীর সংখ্যা ৩৭৮ জন, আর পুরুষের সংখ্যা ৬৭৭ জন। তবে মারা যাওয়া পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। এ মাসে ডেঙ্গুতে ৯ জন নারীর মৃত্যু হয়েছে, পুরুষের সংখ্যা ৫ জন। মারা যাওয়া নারীদের মধ্যে ৪ জনের বয়স ৪৬-৫০ এর মধ্যে। প্রসঙ্গত, গত ২০২৩ সালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ভর্তি হন রেকর্ড তিন লাখ ২১ হাজার ১৭৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা এক লাখ ১০ হাজার ৮ জন এবং ঢাকার বাইরের দুই লাখ ১১ হাজার ১৭১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক হাজার ৭০৫ জন। আর ২০২২ সালে ডেঙ্গুতে ২৮১ জন মারা যান। গুগলের শেয়ারের দরপতন দেশে একমাস কোচিং বন্ধ আবারও প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হলেন হাসান জাহিদ মেট্রোরেলে চড়ুন তবে নিয়মগুলো মানুন মেট্রোরেল সহকারী শিক্ষক নেবে বিএএফ শাহীন কলেজ ঢাকা নৌবাহিনীতে চাকরি, আবেদন অনলাইনে ‘বোটানিক্যাল গার্ডেনের আরো রক্ষণাবেক্ষণ করা জরুরি’ : মো.আজহারুল ইসলাম বিড়াল পুষলে যেসব উপকার পাবেন দোগারি পর্বতে বাংলাদেশের প্রথম অভিযান

বিড়াল পুষলে যেসব উপকার পাবেন

নিউজ ৭ বাংলা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৫২ বার পঠিত

লাইফস্টাইল ডেস্ক : একটি বিড়াল পোষার সঙ্গে কিছু দায়িত্ব পালনের চ্যালেঞ্জ আছে। এগুলো হচেছ বিড়ালের খাবার এবং চিকিৎসার বিল জোগাতে হবে। এর পাশাপাশি তাকে স্বাস্থ্যকর জীবন যাপনের ট্রেনিং দিতে হবে। এই চ্যালেঞ্জ নিতে পারলে বিড়াল পুষতে পারেন। এর অনেক ইতিবাচক দিক রয়েছে। যে ব্যক্তি বিড়াল ভালোবাসেন তারও রযেছে মজার একটি নাম।

প্রথমেই বিড়াল সম্পর্কে মজার কিছু তথ্য দেই। এরা তাদের উচ্চতার পাঁচগুণ এবং দৈর্ঘ্যের ছয়গুণ উপরে লাফ দিতে পারে। জীবনের দুই-তৃতীয়াংশ সময় ঘুমিয়ে কাটাতে পারে। দিনে প্রায় ১৬ ঘন্টা ঘুমায়। সাধারণত পুরুষ বিড়াল বাম পা প্রথমে দিয়ে হাঁটে, নারী বিড়াল ডান-পা প্রথমে বাড়ায়। খ্রিষ্টপূর্ব ৩৬০০ থেকে বিড়াল পোষা হচ্ছে। মনোযোগ পাওয়া জন্য মিয়াউ করে আর খাবার পাওয়ার জন্য মায়াও শব্দ করে। বিড়ালের হাড়ের সংখ্যা ২৩০টি। তারা মানুষের চেয়ে অনেক বেশি শব্দ শুনতে পায়। যিনি বিড়াল ভালোবাসেন তাকে আইলুরোফাইল বলা হয়। বিড়াল পুষলে বেশ কিছু উপকার পাওয়া যায়। এই আর্টিকেলে কয়েকটি উপকারিতা উল্লেখ করা হলো।

বিড়াল বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে: সারাদিন অফিস করে বাসায় ফিরে দেখবেন পোষা বিড়ালটি আপনার জন্য অপেক্ষা করে আছে। সে আপনাকে দেখামাত্র কাছে চলে আসবে। লোমশ বন্ধুটি আপনার শরীরে স্নেহময় ঘেঁষা দেবে। এতে আপনি দুঃশ্চিন্তা করার সময় পাবেন না। স্ট্রোকের ঝুঁকি কমবে। মন ভালো থাকবে। বিড়ালের সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক বরাবর বন্ধুত্বপূর্ণ হয়।

বিড়ালের সঙ্গ আপনাকে খুশি রাখতে পারে: একটি পিং-পং বল দিয়ে তার সঙ্গে খেলতে পারেন। এতে আনন্দ পাবেন।

কম খরচে পোষা যায়: অন্যান্য পোষা প্রাণীর তুলনায় কম বাজেটে বিড়াল পুষতে পারেন। এরা স্বাধীন প্রকৃতির। সারাদিন মানুষের মনোযোগ আশা করে না। দিনের বেশির ভাগ সময় ঘুমিয়ে কাটায়। বিড়ালদের জন্য একটি ট্রে দরকার হয়। এতে কিছু খাবার রাখলে তারা খেয়ে নিতে পারে। এরা দিনে বেশ কয়েকবার পানি পান করে।

কম জায়গায় বিড়াল পুষতে পারেন: আপনি যদি শহরে বসবাস করেন আর একটি পোষা প্রাণী নিজের বাসায় রাখতে চান সেক্ষেত্রে বিড়াল রাখতে পারেন। এরা অল্প জায়গায় বসবাস করতে পারে।

Facebook Comments Box
সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর
জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম প্রকাশিত: ১০:২৬, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ আপডেট: ১০:২৮, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে মোট ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকায় মারা গেছেন ৮ জন, আর ঢাকার বাইরে ৬ জন। এ ১৪ জনের মধ্যে ৯ জনই নারী, পুরুষ ৫ জন। একই সময়ে সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৫ জন। Google news বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারিতে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হলেও ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি। ঢাকায় জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৮ জন, আর ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ, ৬৯৭ জন। জানুয়ারি মাসে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৯২৮ জন ডেঙ্গু রোগী। মোট মৃত্যুর হার ১.৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে নারীর সংখ্যা ৩৭৮ জন, আর পুরুষের সংখ্যা ৬৭৭ জন। তবে মারা যাওয়া পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। এ মাসে ডেঙ্গুতে ৯ জন নারীর মৃত্যু হয়েছে, পুরুষের সংখ্যা ৫ জন। মারা যাওয়া নারীদের মধ্যে ৪ জনের বয়স ৪৬-৫০ এর মধ্যে। প্রসঙ্গত, গত ২০২৩ সালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ভর্তি হন রেকর্ড তিন লাখ ২১ হাজার ১৭৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা এক লাখ ১০ হাজার ৮ জন এবং ঢাকার বাইরের দুই লাখ ১১ হাজার ১৭১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক হাজার ৭০৫ জন। আর ২০২২ সালে ডেঙ্গুতে ২৮১ জন মারা যান।

ফেসবুকে আমরা