1. admin@news7bangla.net : admin :
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১২:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম প্রকাশিত: ১০:২৬, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ আপডেট: ১০:২৮, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে মোট ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকায় মারা গেছেন ৮ জন, আর ঢাকার বাইরে ৬ জন। এ ১৪ জনের মধ্যে ৯ জনই নারী, পুরুষ ৫ জন। একই সময়ে সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৫ জন। Google news বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারিতে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হলেও ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি। ঢাকায় জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৮ জন, আর ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ, ৬৯৭ জন। জানুয়ারি মাসে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৯২৮ জন ডেঙ্গু রোগী। মোট মৃত্যুর হার ১.৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে নারীর সংখ্যা ৩৭৮ জন, আর পুরুষের সংখ্যা ৬৭৭ জন। তবে মারা যাওয়া পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। এ মাসে ডেঙ্গুতে ৯ জন নারীর মৃত্যু হয়েছে, পুরুষের সংখ্যা ৫ জন। মারা যাওয়া নারীদের মধ্যে ৪ জনের বয়স ৪৬-৫০ এর মধ্যে। প্রসঙ্গত, গত ২০২৩ সালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ভর্তি হন রেকর্ড তিন লাখ ২১ হাজার ১৭৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা এক লাখ ১০ হাজার ৮ জন এবং ঢাকার বাইরের দুই লাখ ১১ হাজার ১৭১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক হাজার ৭০৫ জন। আর ২০২২ সালে ডেঙ্গুতে ২৮১ জন মারা যান। গুগলের শেয়ারের দরপতন দেশে একমাস কোচিং বন্ধ আবারও প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হলেন হাসান জাহিদ মেট্রোরেলে চড়ুন তবে নিয়মগুলো মানুন মেট্রোরেল সহকারী শিক্ষক নেবে বিএএফ শাহীন কলেজ ঢাকা নৌবাহিনীতে চাকরি, আবেদন অনলাইনে ‘বোটানিক্যাল গার্ডেনের আরো রক্ষণাবেক্ষণ করা জরুরি’ : মো.আজহারুল ইসলাম বিড়াল পুষলে যেসব উপকার পাবেন দোগারি পর্বতে বাংলাদেশের প্রথম অভিযান

ভোট দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ৭ বাংলা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ২৯ বার পঠিত

নিজেস্ব প্রতিবেদক ঢাকা: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন ঢাকা-১২ আসনের নৌকার প্রার্থী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

রোববার (৭ জানুয়ারি) সকাল পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর মনিপুরি পাড়ার বাছা ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে ভোট দেন তিনি।

ভোট প্রদান শেষে কেন্দ্রের বাইরে সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। আমরা মনে করি এই নির্বাচন সুন্দরভাবে, ভালোভাবে হবে।

দেশের মানুষ বিএনপি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ২০০৮ সালে নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। ২০১৪ সালে তারা (বিএনপি) নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি।

তারা সহিংসতা করেছে, জঙ্গির উত্থান ঘটিয়েছে, অগ্নি সন্ত্রাস করেছে, মানুষ হত্যা করেছে, খুন-জখম করেছে, সম্পদ ধ্বংস করেছে। ২১ আগস্ট গ্রেনেডের মাধ্যমে আমাদের প্রিয় নেত্রীকে উড়িয়ে দেওয়ার একটি প্রচেষ্টা করেছিল তারা।

সেজন্য এ দেশের মানুষ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তারা এটা সুনিশ্চিত হয়ে ২০১৮ সালে নির্বাচন করে ছয়টি আসন পেয়েছিল। পরাজয় সুনিশ্চিত দেখে তাদের মনে উপলব্ধি এসেছে, এ দেশের মানুষ আর তাদের ভোট দেবে না। তখনই তারা এই ভোট বর্জন শুরু করেছে। নানান ধরনের বাহানা, নানান ধরনের দাবি তুলে নির্বাচন বর্জন করার একটি কৌশল তারা বের করেছে।
তিনি আরও বলেন, ২০১৪ তে তারা (বিএনপি) যেভাবে তারা মানুষ হত্যা করেছে, আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছে, সম্পদ পুড়িয়েছে সেই কাণ্ড আবার শুরু করেছে। এ দেশের মানুষ আর অন্ধকারে ফিরে যেতে চায় না, আলোকিত থাকতে চায়। সেজন্য এ দেশের মানুষ কোনো ভীতিতে ভীত না হয়ে সু্ন্দরভাবে সারা দেশে আজ ভোট দেবেন এবং নতুনভাবে আরেকটি সরকার খুব শীঘ্রই আপনারা দেখবেন।

বিএনপিসহ বিভিন্ন দল নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মহলের কাছে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কে নির্বাচনে এলো, কে এলো না, সেটি বড় কথা নয়। নির্বাচনটি শান্তিপূর্ণভাবে সুন্দরভাবে হয়েছে কিনা সেটি দেখার বিষয়। এ দেশের মানুষ কখনোই জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসকে বিশ্বাস করে না। অগ্নি সন্ত্রাসকে তারা (জনগণ) ধিক্কার দিচ্ছে। সেজন্যই তারা (বিএনপি) সুনিশ্চিত, তারা নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। কাজেই তারা (বিএনপি) সব সময়ই ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বিদেশে তাদের প্রভুদের প্রভাবিত করে নতুন কিছু ঘটানোর চেষ্টা করেছে। সব সময়ই তারা এই ষড়যন্ত্রগুলো করে এসেছে।

ভোটার উপস্থিতির বিষয়ে তিনি বলেন, ঢাকার বাসিন্দাদের মাইগ্রেশন হয়। কখনও তারা কলাবাগান থাকেন, কখনো মনিপুরিপাড়ায় আসেন, কখনও আবার মনিপুরি পাড়া থেকে উত্তরায় চলে যান। যার কারণে আজকে বাস ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আমি মনে করি তারা আসবেন। যতই সময় বাড়বে, ততই ভোটারের উপস্থিতি বাড়বে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ২১টি ভোট কেন্দ্রে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে হাজার হাজার কেন্দ্র। সেই তুলনায় ২১টি কেন্দ্রে অনেক ছোট। ২১টি কেন্দ্রে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটতে পারে। তবে আমরা মনে করি, মানুষ সুন্দরভাবে তাদের ভোট দিচ্ছেন।

Facebook Comments Box
সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর
জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম প্রকাশিত: ১০:২৬, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ আপডেট: ১০:২৮, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু, ৯ জনই নারী বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে মোট ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকায় মারা গেছেন ৮ জন, আর ঢাকার বাইরে ৬ জন। এ ১৪ জনের মধ্যে ৯ জনই নারী, পুরুষ ৫ জন। একই সময়ে সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৫ জন। Google news বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারিতে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হলেও ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি। ঢাকায় জানুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৮ জন, আর ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ, ৬৯৭ জন। জানুয়ারি মাসে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৯২৮ জন ডেঙ্গু রোগী। মোট মৃত্যুর হার ১.৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে নারীর সংখ্যা ৩৭৮ জন, আর পুরুষের সংখ্যা ৬৭৭ জন। তবে মারা যাওয়া পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। এ মাসে ডেঙ্গুতে ৯ জন নারীর মৃত্যু হয়েছে, পুরুষের সংখ্যা ৫ জন। মারা যাওয়া নারীদের মধ্যে ৪ জনের বয়স ৪৬-৫০ এর মধ্যে। প্রসঙ্গত, গত ২০২৩ সালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ভর্তি হন রেকর্ড তিন লাখ ২১ হাজার ১৭৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা এক লাখ ১০ হাজার ৮ জন এবং ঢাকার বাইরের দুই লাখ ১১ হাজার ১৭১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক হাজার ৭০৫ জন। আর ২০২২ সালে ডেঙ্গুতে ২৮১ জন মারা যান।

ফেসবুকে আমরা